বিছানায় প্রস্রাব করায় মায়ের পরকীয়া প্রেমিকের প্রহারে পৃথিবী থেকে বিদায় নিল সাত বছরের শিশু!

মাত্র ৭ বছরেই পৃথিবী থেকে বিদায় নিল শিশুটি। লড়াই করেও বাঁচতে পারল না সে। আট দিনের লড়াই থেমে গেল চোখের পলকে। মায়ের পরকীযা প্রেমিকের হাতে

বেদম মারপিটের শিকার হয়েছিল সে। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তিও

করা হয়েছিল তাকে। সেখানে চিকিত্‍সাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছে শিশুটি। মর্মান্তিক এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের কেরালার কোলেনচেলিতে।

কেরালা পুলিশ বলছে, এক সপ্তাহ আগে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে

আসা হয়েছিল শিশুটিকে। তারপর থেকেই ভেন্টিলেশনে ছিল সে। শিশুটির মায়ের

প্রেমিক অরুণ আনন্দ (৩৬) নামের এক যুবক। পুলিশ জানিয়েছে, নিহত শিশুর মা ও তার ৪ বছরের ভাই একসঙ্গে রাতে ঘুমিয়েছিল। কিন্তু গভীর রাতে বিছানা ভিজিয়ে

ফেলে শিশুটির চার বছর বয়সী ছোট ভাই।

এতে ঘুম ভেঙে যায় মায়ের প্রেমিকের। তখনই প্রেমিকার ছোট ছেলেকে বেধড়ক মারতে শুরু করে অরুণ। কিন্তু ভাইকে মারপিট করতে দেখে বাঁধা দেয় সাত বছর

বয়সী বড় ভাই। বাঁধা দেওয়ার কারণে তাকেও মারধর শুরু করে দেয় অরুণ। শুধু তাই

নয়, ওয়ার্ডরোবে মাথা পিষে দেওয়া হয় তার। পরে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে শিশুটির মাথা ফাটিয়ে দেয় অভিযুক্ত ওই যুবক। প্রবল রক্তক্ষরণ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়

শিশুটিকে। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। অভিযুক্ত অরুণ আনন্দকে গ্রেফতার করেছে কেরল পুলিশ।

Updated: 04/08/2019 — 11:05 am